দিনদুপুরে ককটেল ফাটিয়ে ডাকাতি, গ্রেফতার ৯

গাজীপুরে দিনদুপুরে ককটেল ফাটিয়ে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনায় আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি ও ককটেল, চাপাতিসহ আন্ত:জেলা ডাকাত দলের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় ১৭টি মামলার সন্ধান পাওয়া গেছে। এছাড়া নতুন করে আগ্নেয়াস্ত্র, বিস্ফোরক, ডাকাতি, পুলিশ অ্যাসল্টের অপরাধে কাশিমপুর থানায় বিভিন্ন ধারায় পৃথক আরও ৪টি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর দপ্তরে পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম এক প্রেস ব্রিফিং এ তথ্য জানান।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, গত ১৬ অক্টোবর দুপুর আনুমানিক ২টার দিকে গাজীপুর মেট্রোপলিটনের কাশিমপুর থানাধীন এনায়েতপুর এলাকার আলীর জুট কারখানার সামনে মোটরসাইকেল ও অটোরিকশা যোগে ৬-৭ জনের একটি ডাকাত দল প্রকাশ্য ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে একটি মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ডিএসএম শাহেদ শরীফের কাছ থেকে নগদ ৫ লাখ ২২ হাজার টাকা নিয়ে যায়। এ ঘটনায় কাশিমপুর থানায় মামলা হয়।

ওই মামলা তদন্তকালে তথ্যের ভিত্তিতে ইউসুফ আলী রানা (৩৫) ও বিধান হালদার (৩১) নামে দুজনকে গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে গ্রেফতার করা হয়। তারা জানায়, ওই রাতেই কাশিমপুরের লস্করচালার লোহাকৈর রোড সংলগ্ন খান ব্রাদার্সের খেলার মাঠে ডাকাতির প্রস্তুতি নিতে দেশীয় অস্ত্রসহ একদল ডাকাত একত্রিত হবে।

এ সংবাদের ভিত্তিতে উপ-পুলিশ কমিশনার আবু তোরাব মো. শামছুর রহমানের (অপরাধ উত্তর) তত্ত্বাবধায়নে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার রেজওয়ান আহমেদের নেতৃত্বে পুলিশের ৪টি টিম গোপনে ওই এলাকায় অবস্থান নেয় এবং আনুমানিক রাত সাড়ে ১২টার দিকে কয়েকজন ডাকাত মাঠে প্রবেশের সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে যায়। তাৎক্ষণিক চারদিক থেকে পুলিশের ৪টি টিমের সদস্য ডাকাতদের ঘিরে ফেলে।

এ সময় ডাকাতরাও পুলিশের ওপর ককটেল বিস্ফোরণ ও গুলিবর্ষণ শুরু করে। এতে মো. মোস্তাফিজুর রহমান নামে পুলিশের একজন কনস্টেবল আহত হন এবং সোলাইমান আকন (৪০) নামে একজন ডাকাত সদস্যের পায়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেফতার হয়। এ সময় পুলিশ ডাকাত দলের আরও ৭ সদস্যকেও গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেফতাররা হলো- নীলফামারীর সদর থানার মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে আনোয়ার হোসেন ওরফে মিতা আনোয়ার (৩৫), মাদারীপুর জেলা ও থানার মৃত আ. সোবহানের ছেলে রুবেল (৪০), ঢাকার কামরাঙ্গীরচরের ৫নং গলির আবেদ আলী বেপারীর ছেলে বাবুল বেপারী ওরফে বাবু (৩৬), শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া থানা এলাকার মৃত ফজলুল হকের ছেলে জাকির হোসেন (৪০), গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া থানা এলাকার শ্যামল ওরফে শ্যামল বাড়ইয়ের ছেলে সাগর বাড়ই (৪১) ও মৃদুল বাড়ই ওরফে আকাশ (৪৫)।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১টি বিদেশি পিস্তল, ১টি ম্যাগাজিন, ১ রাউন্ড তাজা গুলি, ১২টি বিস্ফোরিত ককটেল, ৩টি চাপাতি, ২টি মোটরসাইকেল, ২টি হেলমেট, ১টি অটোরিকশা, ২টি পিস্তলের খালি খোসা, ৭ রাউন্ড কার্তুজের খালি খোসা, বিস্ফোরিত ককটেলের অংশবিশেষ ও ছেঁড়াফাটা স্কচটেপ, ১টি ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ কমিশনার আরও জানান, ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ, কর্তব্যরত পুলিশের ওপর আক্রমণ, অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার, বিস্ফোরকদ্রব্য মজুদ ও বিস্ফোরণের অপরাধে পৃথক আরও ৪টি মামলা করা হবে। এছাড়া সিডিএমএসের অনুসন্ধানে তাদের বিরুদ্ধে ঢাকা, টাঙ্গাইল, গোপালগঞ্জ, শরীয়তপুর, জয়পুরহাট, রংপুর, মুন্সীগঞ্জ ও গাজীপুরের বিভিন্ন থানায় ১৬টি মামলা পাওয়া গেছে।

16
6
3
5

Posts

প্রধান পৃষ্ঠপোষক: আলহাজ্ব ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ্ (এমপি),মাননীয় সংদ সদস্য ঢাকা ১৬,
প্রধান উপদেষ্ঠা: সাইদুর রহমান রিমন, সিনিয়র ক্রাইম রিপোর্টার, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন
চেয়ারম্যান ও প্রকাশক: মোঃ মাসুদ রানা (জিয়া), সহকারি সম্পাদক, দৈনিক অগ্নিশিখা,
সম্পাদক: শাহাজাদা শামস ইবনে শফিক
সহ-সম্পাদক: মোঃশরিফুল ইসলাম (রবিন)

সম্পাদকীয় কার্যালয়
১২০/এ মতিঝিল বা/এ, ৪থ তলা, সুইট-৪০২, ঢাকা- ১০০০
বার্তা কক্ষ : ০১৬৪২০৭৮১৬৪
বিজ্ঞাপনের জন্য : ০১৬৮৬৫৭১৩৩৭
Gmail:banglarrazpratidin@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed by banglarraz24.com © 2022
x

Contact Us