1. admin@banglarraz24.com : banglarrazrobin :
ভারত-চীন বাকযুদ্ধ ক্ষমতায় আসার পর - Banglarraz24
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন

ভারত-চীন বাকযুদ্ধ ক্ষমতায় আসার পর

  • প্রকাশ কাল : মঙ্গলবার, ১২ মার্চ, ২০২৪
  • ২৭ জন দেখেছে
ভারত-চীন বাকযুদ্ধ ক্ষমতায় আসার পর

লোকসভা নির্বাচন সামনে করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সীমান্তবর্তী রাজ্য অরুণাচল সফর ঘিরে বিরল বাগযুদ্ধে জড়িয়েছে বেইজিং ও নয়াদিল্লি। চীন মোদির এই সফর নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে। অন্যদিকে ভারতও এর জবাব দিয়েছে।

গত শনিবার (৯ মার্চ) অরুণাচল সফর করেন নরেন্দ্র মোদি। সেখানে ১৩ হাজার ফুট উচ্চতায় নির্মিত ‘সেলা টানেল’ নামে একটি টানেল উদ্বোধন করেন তিনি। টানেলটির ফলে ভারতীয় সেনাদের যাতায়াতে যেমন সুবিধা হবে তেমনি অস্ত্র সরবরাহের ক্ষেত্রেও এটি সুবিধা দেবে।

মোদির অরুণাচল সফর নিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানিয়েছে চীন। বলেছে, এই সফর দুই দেশের সীমান্ত সমস্যাকে আরও জটিল করে তুলবে। বেইজিং অরুণাচল প্রদেশ চীনের অংশ বলে মনে করে। তাদের দাবি, এই অঞ্চল দক্ষিণ তিব্বতের অংশ এবং একে তারা জাংজান বলে থাকে।

সফরের দুদিন পর সোমবার (১১ মার্চ) চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন এই প্রসঙ্গে বলেন, তারা এই বিষয়ে ভারতের কাছে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন,চীন-ভারত সীমান্তের পূর্বাঞ্চলে (অরুণাচল প্রদেশ) ভারতীয় নেতাদের সফরের তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে।

ওয়াং ওয়েনবিন বলেন,  জাংজান এলাকা (অরুণাচল প্রদেশ) চীনের অংশ। চীন কখনও ওই অংশকে ভারতের বলে স্বীকৃতি দেয়নি। বরাবর দৃঢ়ভাবে তার বিরোধিতা করেছে। ওই এলাকায় যথেচ্ছ স্থাপনার কোনো অধিকারও ভারতের নেই। এই পদক্ষেপ সীমান্ত প্রশ্নকে জটিলতর করবে।

ভারতের পক্ষ থেকে চীনের এই আপত্তির প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রণধীর জয়সোয়াল বলেছেন,
ভারতীয় নেতাদের অরুণাচল সফরের বিরোধিতা করার কোনো যৌক্তিকতাই চীনের নেই।

তিনি আরও বলেন,
অন্যান্য প্রদেশে ভারতীয় নেতারা যেমন যান, ঠিক সেভাবে অরুণাচলেও যান। সেখানে উন্নয়নমূলক প্রকল্পের বিরোধিতার কোনো কারণই চীনের থাকতে পারে না। তাছাড়া এই জাতীয় আপত্তির কারণে বাস্তবতারও কোনো পরিবর্তনও হবে না। অরুণাচল প্রদেশ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ ছিল এবং থাকবেও।

চীন বরাবরই অরুণাচল প্রদেশ নিয়ে স্পর্শকাতর। যতবারই ভারতীয় নেতারা সেখানে গিয়েছেন, প্রতিবারই চীন তার প্রতিবাদ জানিয়েছে। তারা ওই রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চলের নামও তাদের মতো করে রেখেছে। সূত্র: দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট

 

google news : banglarraz24

খবরটি শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও খবর
© All rights reserved © 2019 banglarraz24.com
Theme Customized By BreakingNews