12.7 C
Los Angeles
শুক্রবার, ডিসেম্বর ১, ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন-২০২৪

রায়পুরে মারধরের মামলায় পৌর কাউন্সিলরসহ দুজন কারাগারে

সারাদেশরায়পুরে মারধরের মামলায় পৌর কাউন্সিলরসহ দুজন কারাগারে
খবরটি শেয়ার করুন

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে দিনমজুর মো. ইউসুফ ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় করা মামলায় আত্মসমর্পণ করলে পৌরসভার কাউন্সিলরসহ দুজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার কাউন্সিলরসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

পরে বুধবার দুপুরে লক্ষ্মীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের (রায়পুর) বিচারক তারেক আজিজের আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাদের জামিন নামঞ্জুর করেন তিনি।

ঘটনায় আসামিরা হলেন— রায়পুর পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আনোয়ার হোসেন বাহার ও তার অনুসারী দেনায়েতপুর এলাকার আরিফ হোসেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী আনোয়ার হোসেন মৃধা যুগান্তরকে জানান, প্রাথমিকভাবে আদালত অভিযোগের সত্যতা পেয়েছেন। এতে আদালতের বিচারক ওই পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন। আগামী ৩০ নভেম্বর তাদের আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছিল। এ ছাড়া মামলার ছয় নম্বর আসামি মো. দুলালকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ইউসুফের সঙ্গে অভিযুক্তদের জমিসংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। এরই জের ধরে রোববার বিকালে অভিযুক্ত আরিফ, রাজিব, মানিক ও লতিফ তাকে পিটিয়ে আহত করে। এ সময় ইউসুফকে বাঁচাতে গেলে তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগমকেও পেটানো হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সরকারি হাসপাতালে পাঠান। পথে মামলার দ্বিতীয় আসামি কাউন্সিলর বাহার তাদের গতিরোধ করেন। অশ্রাভ্য ভাষায় গালমন্দ করার অভিযোগ এনে বাহার তাকে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি মারেন। এতে ইউসুফের ডান চোখে জখম হয়। এ ঘটনায় ইউসুফ বাদী হয়ে আদালতে ছয়জনের নামে মামলা করেন।

ভুক্তভোগী দিনমজুর মো. ইউসুফ সাংবাদিকদের জানান, কাউন্সিলর বাহার অন্য আসামিদের আস্থাভাজন। এ জন্য হাসপাতাল যাওয়ার পথে দ্বিতীয়বার কাউন্সিলর আমাকে মারধর করেন।

এ ব্যাপারে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জাপা নেতা ও কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বাহার জানান, তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সত্য নয়। সালিশে তাদের ঘটনাটি মীমাংসা করে দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

আরও খবর পড়ুন

Check out other tags:

পাঠকের পছন্দ

x