৪০ লাখ টাকা নিয়ে উধাও ১০ বিয়ে করা মিজান!

কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার ভারেল্লাহ দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের এতবারপুর ভুঁইয়াবাড়ির মৃত্যু ফজলুল হকের ছেলে বিয়ে পাগল মিজানুর রহমান (৪৫) নিজেকে সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে ১০ বিয়ে করেছেন। এরই মধ্যে এক ভুক্তভোগী রাশেদা বেগমকে বিয়ে করে তিনি ফেঁসে যান। বিয়ের আগে মিজানুর নিজেকে সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা বলে পরিচয় দেন।

রাশেদা বেগম বলেন, মিজানুর যাদের বিয়ে করেছেন, তারা বেশিরভাগই হচ্ছে বিধবা আর নিরীহ পরিবারের মেয়ে। অনেককে আবার বিয়ে করে ডিভোর্স দিয়েছেন। তার প্রতারণার শিকার ১০ স্ত্রী হচ্ছেন— সেফালী আক্তার, সিফা, জেসমিন, কাজল, মোরশেদ বেগম মিজান, মনি, রিয়া, শান্তা আক্তার, রাশেদা। ৬ মাস থেকে এক বছর সংসার করে আর সংসার করেননি মিজান।

ভিকটিম রাশেদা বেগম যুগান্তরকে বলেন, আমাকে বিয়ের আগে মিজান বলে— আমার বাবা-মা কেউ নেই। আমি এতিম সেনাবাহিনীতে চাকরি করি। বউ মারা গেছে। আমাকে কোর্টের মাধ্যমে তিন লাখ টাকা কাবিনামায় ২০২১ সালে ১১ এপ্রিল মিজান বিয়ে করে।

বিয়ের কিছু দিন পর সে আমার আত্মীয়ের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক তৈরি করে বলে— কাউকে সেনাবাহিনীতে চাকরি দেবে, আবার কাউকে বলে বিদেশে পাঠাবে। এই বলে রাশেদা বেগম নমনীয় চেক দিয়ে স্বজনের কাছ থেকে ৪০ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যায়। পরে রাশেদা বেগমের আত্মীয়স্বজন তাকে টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করলে, মিজানুর রহমানের বাড়িতে গেলে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরটিও বন্ধ রয়েছে।

রাশেদা বেগম বলেন, আমি টাকার বিষয় জানতে চাইলে সে বিভিন্ন অজুহাত দেখা তো এবং আমাকে চুলের মুঠি ধরে মারধর করত। আবার আমাকে বলত— ৫ লাখ টাকা যৌতুক না দিলে আরেক বিয়ে করে নতুন সংসার করবে বলে সে আমাকে জানায়। আমি আর পাঁচ লাখ টাকা দিইনি। আমার আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে আমার চেক দিয়ে ৪০ লাখ টাকা নিয়ে সে পালিয়ে যায়।

রাশেদ বেগম আরও বলেন, চেক জালিয়াতি ও প্রতারণা করার কারণে আমি আদালতে যৌতুক বিরোধ আইনের ৩ ধরায় মামলা করেছি, আদালত বিয়েপাগল মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট জারি করেছেন। তাকে এখনো পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি।

মঙ্গলবার বুড়িচং থানার ওসি মারফ রহমান বলেন, ওয়ারেন্ট কাগজ হাতে পেয়েছি। আমরা মিজানুর রহমানকে গ্রেফতার করার জন্য কাজ করেছি।

16
6
3
5

Posts

প্রধান পৃষ্ঠপোষক: আলহাজ্ব ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ্ (এমপি),মাননীয় সংদ সদস্য ঢাকা ১৬,
প্রধান উপদেষ্ঠা: সাইদুর রহমান রিমন, সিনিয়র ক্রাইম রিপোর্টার, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন
চেয়ারম্যান ও প্রকাশক: মোঃ মাসুদ রানা (জিয়া), সহকারি সম্পাদক, দৈনিক অগ্নিশিখা,
সম্পাদক: শাহাজাদা শামস ইবনে শফিক
সহ-সম্পাদক: মোঃশরিফুল ইসলাম (রবিন)

সম্পাদকীয় কার্যালয়
১২০/এ মতিঝিল বা/এ, ৪থ তলা, সুইট-৪০২, ঢাকা- ১০০০
বার্তা কক্ষ : ০১৬৪২০৭৮১৬৪
বিজ্ঞাপনের জন্য : ০১৬৮৬৫৭১৩৩৭
Gmail:banglarrazpratidin@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed by banglarraz24.com © 2022
x

Contact Us